মৌলভীবাজারে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরের অভিযান অব্যাহত, জরিমানা আদায়

মোঃ তাজুদুর রহমান, মৌলভীবাজার
জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের সার্বিক নির্দেশনা এবং জেলা প্রশাসক মৌলভীবাজারের তত্ত্বাবধানে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয় এর সহকারী পরিচালক মো: আল-আমিন এর নেতৃত্বে জেলা গোয়েন্দা শাখার পুলিশ ফোর্সের সহযোগিতায় রবিবার (২৬ জুলাই) মৌলভীবাজার সদর ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার ঢাকা বাস স্ট্যান্ড, শ্রীমঙ্গল রোড, মোকামবাজার, গিয়াসনগর বাজার, ভৈরবগঞ্জ বাজার, মৌলভীবাজার রোডসহ বিভিন্ন জায়গায় নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর হাট বাজার, ফার্মেসী এবং অন্যান্য দোকানে মনিটরিং ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।
   উক্ত তদারকি অভিযানে মূল্য তালিকা না রাখা, অতিরিক্ত দামে খাদ্য পণ্য বিক্রয় করা, মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ ও খাদ্য পণ্য বিক্রয় করা, অতিরিক্ত দামে বাসা বাড়ীর গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রয় করা, বিস্ফোরক আইনের শর্ত লংঘন করে ঝঁকিপূর্ণভাবে রাস্তার পাশে গ্যাস সিলিন্ডার রেখে বিক্রয় করাসহ বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে জেলা শহরের ঢাকা বাস স্ট্যান্ডে অবস্থিত তালহা এন্টারপ্রাইজকে ১ হাজার ৫ শত টাকা, শ্রীমঙ্গল রোডে অবস্থিত মামুন ফার্মেসীকে ১ হাজার টাকা, গিয়াসনগর বাজারে অবস্থিত মেসার্স বিসমিল্লাহ মিনি সুপার ষ্টোরকে ২ হাজার ৫ শত টাকা, শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভৈরবগঞ্জ বাজারে অবস্থিত ছাত্তার  এন্টারপ্রাইজকে ১ হাজার টাকা, জান্নাত ষ্টোরকে ১ হাজার ৫ শত টাকা, মৌলভীবাজার রোডে অবস্থিত আলমগীরের মুদির দোকনকে ১ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও তা আদায় করা হয়।
 অভিযানে ৬টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ৮ হাজার ৫ শত টাকা জরিমানা ও তা আদায় করা হয়। পেঁয়াজ, রসুন, আদা, চাল, তেল, শাক-সবজি, কাঁচামাল, মশলাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী ন্যায্য মূল্যে প্রাপ্তি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এবং কেউ যাতে খাদ্য মজুত করে কৃত্রিম সঙ্কট তৈরি করতে না পারে, ভোগ্য পণ্য সামগ্রীর দাম যেনো কেউ অনৈতিক ভাবে বাড়াতে না পারে এবং নকল হ্যান্ড সেনিটাইজার ও নিম্ন মানের সংক্রমণরোধী জীবাণুনাশক বিক্রয় না করতে পারে সেই লক্ষ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কর্তৃক প্রতিনিয়ত বাজার মনিটরিং কার্যক্রম চলমান থাকবে।

শেয়ার করুন