হজের সিদ্ধান্ত হয়নি, সৌদিতে স্থগিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইটও

আসন্ন পবিত্র হজ নিয়ে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে অংশগ্রহণের বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি সৌদি সরকার। এ সংক্রান্ত তাদের কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত কূটনৈতিক চ্যানেল বা দপ্তর অন্য দেশগুলোর সঙ্গে যোগযোগও করেনি।

আজ মঙ্গলবার মক্কা বাংলাদেশ হজ মিশনের হজ কাউন্সিলর মাকসুদুর রহমান দৈনিক আমাদের সময়কে, ‘যতদূর জানা যায়, সৌদি সরকার অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক করোনা পরিস্থিতি তথা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতামত ইত্যাদির উপর ভিত্তি করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে। দেশটির সরকারের সিদ্ধান্ত পাওয়া মাত্রই সংশ্লিষ্ট সকলকে অবহিত করা হবে।’

অপরদিকে করোনাভাইরাসের পরিস্থিতির কারণে পরবর্তী বিজ্ঞপ্তি না হওয়া পর্যন্ত সৌদি আরবে আন্তর্জাতিক রুটের সবধরনের ফ্লাইট চলাচল স্থগিত রেখেছে কর্তৃপক্ষ। আন্তর্জাতিক রুট পুনরায় চালু হয়েছে- এমন গুজব ছড়িয়ে পড়ায় নিজেদের সিদ্ধান্তের খবর জানায় রাষ্ট্রীয় বিমানসংস্থা সৌদিয়া এয়াররাইন্স।

তবে বিমানসংস্থাটির আশা, ধীরে ধীরে পুনরায় ফ্লাইট চলাচল শুরু হবে এবং তা সরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ও মিডিয়া মাাধ্যমে ঘোষণা করা হবে।এক বিজ্ঞপ্তিতে সৌদিয়া এয়াররাইন্স জানায়, এই মুহূর্তে কেবলমাত্র বিদেশে আটকেপড়া সৌদি নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনতে বিশেষ ফ্লাইটে প্রবেশের অনুমতি রয়েছে। ‘আওদা’ (প্রত্যাবর্তন) প্রকল্পের অংশ হিসেব অনুমোদিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইটগুলি দিয়ে পরিষেবা দিচ্ছে সৌদিয়া।

এ দিকে দুই মাসেরও বেশি সময় স্থগিত থাকার পর গত ৩১ মে সৌদি আরবের অভ্যন্তরীণ রুটের ফ্লাইট চলাচল পুনরায় শুরু হয়। সৌদিয়া এয়ারলাইন্সের সিডিউল অনুযায়ী, মঙ্গলবার থেকে জেদ্দা এবং হাওল এর মধ্যে ফ্লাইটও শুরু হবে। দেশটির বিমান চলাচল নিয়ন্ত্রক সিভিল এভিয়েশন জেনারেল অথরিটি (জিএসিএ) জানিয়েছে, বিশা, তাইফ, ইয়ানবু, হাফর আল-বাটিন এবং শরওরাহ বিমানবন্দরগুলিকেও আবারও চালু করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন