সাকিব নিয়ম ভাঙায় বিপাকে মোহামেডান

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) রান খরার ভুগছেন সাকিব আল হাসান। এর মধ্যেই আবার জৈব সুরক্ষা বলয় ভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে বিসিবি। কারণ দর্শানোর চিঠি দিয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে। সিসিডিএমের সদস্য সচিব আলী হোসেন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। দুই দিনের মধ্যে চাওয়া হয়েছে চিঠির জবাব। পারফরম্যান্সে ধারাবাহিকতা না থাকায় গত শুক্রবার মিরপুরের ইনডোর মাঠে ঐচ্ছিক অনুশীলন করেছেন মোহামেডানের অধিনায়ক সাকিব। তার সঙ্গী ছিলেন ক্লাবের দুই সতীর্থ স্পিনার আসিফ হাসান ও পেসার রুয়েল মিয়া। জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের বল থ্রো করা নাসিরকেও দেখা যায় অনুশীলনে।

জানা যায়, অনুশীলনে বল করার জন্য এসেছিলেন মাস্কো সাকিব ক্রিকেট একাডেমির দুজন। তাদের সঙ্গী হয়ে এসেছিলেন আরো একজন। সাদা শার্ট পরা বাইরের সেই ব্যক্তি মোবাইলে ছবি তুলেছেন। নেট বোলারদের সংস্পর্শে যাচ্ছিলেন। তারা সাকিবের এক ঘণ্টার নেট সেশনে ছিলেন। এই খবর জানার পর বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে তদন্ত শুরু করে বিসিবি। আলী হোসেন বলেন, আমরা মোহামেডানকে চিঠি দিয়েছি। তাদের দুই দিনের সময় দেয়া হয়েছে চিঠির উত্তর দিতে। উত্তর পাওয়ার পর আমরা পরবর্তী পদক্ষেপ নেবো। বিসিবি নিজেদের মতো করে ব্যবস্থা নেবে। জৈব সুরক্ষা বলয় নিয়ে বেশ কড়াকাড়ি অবস্থানে বিসিবি। নিজস্ব খরচে এ বলয় তৈরি করেছে দেশের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ সংস্থা। ১২ দলের ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ, সাপোর্টিং স্টাফ, ম্যানেজমেন্ট ও অফিসিয়ালদের রাখা হয়েছে ঢাকার চারটি পাঁচ তারকা হোটেলে।

টুর্নামেন্ট শুরুর আগে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজন বলেছিলেন, প্রতিটি হোটেলে কমপ্লায়েন্স ম্যানেজার দেয়া হচ্ছে। চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তারা খেয়াল রাখবেন এবং যদি কোনো নিয়ম ভঙের ঘটনা ঘটে আমাদের টেকনিক্যাল কমিটিও থাকবে। সেই কমিটি এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে। প্রটোকল ভাঙলে কী হবে সেটা আমাদের নীতিমালায় বলা আছে।

শেয়ার করুন