রোজিনাকে হেনস্তার প্রতিবেদন জমা

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে আটকে রেখে হেনস্তা করার ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ জুন) কমিটির আহ্বায়ক ও স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের যুগ্ম সচিব (উন্নয়ন অধিশাখা) মো. সাইফুল্লাহিল আজম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে প্রতিবেদনটি নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব লোকমান হোসেন মিয়ার কাছে এ প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে সাইফুল্লাহিল আজম বলেন, “আমরা দুদিন সময় বাড়ানোর আবেদন করেছিলাম। দুই দিন পর তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছি।”

প্রতিবেদন বিষয়ে জানতে চাইলে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের যুগ্ম সচিব বলেন, “এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারব না। আমাদের মুখপাত্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মুহিবুর রহমান বলতে পারবেন।”

‘প্রতিবেদন বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারব না’ উল্লেখ করে মুহিবুর রহমান বলেন, “২৪ তারিখে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব বরাবর তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়। এ বিষয়ে সচিব বা মন্ত্রী বিস্তারিত বলতে পারবেন।”

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের হেনস্তার ঘটনায় গত ১৭ মে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে মন্ত্রণালয়। এতে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের যুগ্ম সচিব (উন্নয়ন) মো. সাইফুল্লাহিল আজমকে আহ্বায়ক করা হয়। কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের উপসচিব মো. আবদুছ সালাম ও মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা।

তিন কার্যদিবস অর্থাৎ ২০ মের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার কথা থাকলেও তা সম্ভব হয়নি। পরে দুই দিনের সময়ের আবেদন করা হয়। এই সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয় মন্ত্রণালয়ে।

১৭ মে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে গেলে রোজিনাকে পাঁচ ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখেন সেখানকার কর্মকর্তারা। ওই দিন রাতেই রাষ্ট্রীয় গোপন নথি চুরির অভিযোগে শাহবাগ থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এই মামলায় রোজিনাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।-জাগরণ 

শেয়ার করুন