ড. কামাল হোসেনের ওপর হামলা ফৌজদারি অপরাধ : সিইসি                       বিএনপি নেতা মাহাবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ                       ৫২টি স্বর্ণের বার জব্দ ওসমানী বিমানবন্দরে                       আমজাদ হোসেনের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক প্রকাশ                       জেনে রেখ কেউ চিরস্থায়ী নয়, পুলিশকে ড. কামাল       

রাজশাহী সীমান্তে বাড়ছে অপরাধ,পুলিশ ব্যস্ত রুটিন কাজে

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তা বলয় ভেদ করে মাদক ও অবৈধ অস্ত্র-বিস্ফোরক আসছে এপারে। এরপর নির্বিঘ্নে চলেও যাচ্ছে গন্তব্যে।গোয়েন্দারা বলছেন, সম্প্রতি এই সীমান্ত এলাকায় বাড়ছে জঙ্গিদের গোপন তৎপরতা। চোরাচালানীদের সঙ্গে মিলেমিশে অপরাধেও জড়াচ্ছে তারা। তবে রাজশাহী পুলিশের এসব অপরাধ দমনে তৎপরতা নেই বললেই চলে। রাজশাহী জেলা ও নগর পুলিশ এখন ব্যস্ত রুটিন কার্যক্রমে।এদিকে, এ অঞ্চলের শহরে-গ্রামে সবখানেই ভোটের আলোচনা। এরই মধ্যে ক্ষমতাশীন আওয়ামী লীগ ও বিরোধী বিএনপি জোট এখানকার ছয় আসনে চূড়ান্ত করেছে প্রার্থী। এখন চলছে মাঠ দখলের প্রস্তুতি। ভোট নিয়ে বাড়ছে উত্তাপ। এ দিকেও বাড়তি নজর নেই পুলিশের।যদিও পুলিশ কর্তারা বলছেন, এখন পর্যন্ত এলাকার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালো। অবনতি হবারও শঙ্কা নেই। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে রেখে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ। বিশেষ প্রস্তুতি হিসেবে প্রস্তুত রয়েছে নগর ও জেলা পুলিশের দুটি বিশেষ দল।পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরেই মাদক বিরোধী অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। প্রতিদিনই চলছে এই অভিযান। এতে প্রতিদিনই ধরা পড়ছে গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আসামিসহ অপরাধীরা। সর্বশেষ সোমবার রাতভর রাজশাহী নগর পুলিশ (আরএমপি) ৪৬ জনকে এবং জেলা পুলিশ ৩৮ জনকে গ্রেফতার করে।

CRT-01

নিয়মিত অভিযানে অন্যান্য মামলার আসামিদেরও গ্রেফতার করেছে পুলিশ। উদ্ধার করেছে কিছু মাদকও। থানা পুলিশ ও গোয়েন্দা শাখার সদস্যরা প্রতিরাতেই বের হচ্ছেন এসব অভিযানে। অভিযান চলছে রাতভর।দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা নাম প্রকাশ না করে বলেন, টানা এমন অভিযানে তারা এখন ক্লান্ত। তারপরও নির্দেশনা মেনে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশের মাঠ পর্যায়ের ইউনিটগুলো। ফলে ভোটের বাড়তি দায়িত্বপালন কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।এদিকে, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্তারা বলছেন, রাজশাহীর গোদাগাড়ীর চর আষাড়িয়াদহ এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের চর আলাতুলি সীমান্তজুড়ে প্রায়ই তৎপরতা চালাচ্ছে জঙ্গিরা। তাদের ধরতে অভিযানেও যাচ্ছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। কিন্তু তার আগেই কাঁটাতার গলিয়ে জঙ্গিরা সহজেই চলে যাচ্ছে সীমান্তের ওপারে।এছাড়া এখানকার সীমান্তপথে বছরজুড়েই চলছে মাদক পাচার। এ পথেই ঢুকছে ক্ষুদ্র আগ্নেয়াস্ত্র, গানপাউডার, বিস্ফোরক ও গুলি। এরপর চলে যাচ্ছে রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকায়। নির্বাচন সামনে রেখে ক্ষুদ্র আগ্নেয়াস্ত্রের চালান বেড়েছে। দু-একটি অস্ত্রের চালান ধরা পড়লেও অধিকাংশই চলে গেছে গন্তব্যে। কিন্তু দুর্গম সীমান্ত এলাকায় সময়মতো অভিযানে যেতে পারছে না আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।এ বিষয়ে রাজশাহী বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক আসিফ বুলবুল বলেন, নির্বাচন ঘীরে সীমান্তে সার্বক্ষণিক নজরদারি রয়েছে বিজিবির। তবে সীমান্ত অপরাধ বৃদ্ধি বা জঙ্গিদের গোপন তৎপরতা লক্ষ্য করা যায়নি। সীমান্তে যে কোনো ধরনের অপরাধ দমনে কাজ করছেন বিজিবি সদস্যরা।এদিকে, জেলা ও নগর পুলিশ বলছেন, জঙ্গি দমন, মাদক নিয়ন্ত্রন, দাঙ্গা দমন, সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রস্তুত পুলিশের দুটি বিশেষ দল। এর মধ্যে আরএমপির ক্রাইসিস রেসপন্স টিমে (সিআরটি) রয়েছেন ২৪ সদস্য। আর জেলা পুলিশের কুইক রেসপন্স টিমের (কিউআরটি) সদস্য সংখ্যা ১৩।

QRT-01

মার্কিন বিশেষ বাহিনী সোয়াতের আদলে গড়ে তোলা হয়েছে এই দুটি দল। দক্ষতা বাড়াতে দেশে ও বিদেশে উচ্চতর প্রশিক্ষণ পেয়েছেন দলের সদস্যরা। সিআরটি সদস্যদের রাস্তায় দেখা গেলেও কিউআরটি সদস্যরা রয়েছেন রাস্তায় নামার অপেক্ষায়।জেলা পুলিশের মুখপাত্র আব্দুর রাজ্জাক খান বলেন, এখনও এই এলাকার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক। নির্বাচন নিয়ে অপ্রীতিকর ঘটনার শঙ্কা না থাকলেও সর্তক রয়েছে পুলিশ। যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুত পুলিশ। বিশেষ ক্ষেত্রে তৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিতে প্রস্তুত জেলা পুলিশের কিউআরটি।জানতে চাইলে আরএমপির মুখপাত্র ইফতেখায়ের আলম বলেন, মাদক বিরোধী এই অভিযান তাদের রুটিন কাজ। এতে কেবল গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আসামিদের গ্রেফতার করা যাচ্ছে। এই অভিযানে রাজনৈতিক কোনো ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না।তিনি আরও বলেন, নির্বাচনে নগরীর নিরাপত্তায় সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে আরএমপির। এরই অংশ হিসেবে আরএমপি সদস্যদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।এছাড়া নির্বাচন কেন্দ্রীক সহিংসতা মোকাবিলায় প্রস্তুত রয়েছে আরএমপির সিআরটি।জেলা ও নগর পুলিশের এই তৎপরতা এবং নির্বাচন কেন্দ্রীক নিরাপত্তা বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের অতিরিক্ত উপ-মহাপরিদর্শক নিশারুল আরিফ মন্তব্য করতে রাজি হননি।


  • ক্রাইমনিউজবিডি.কম

    © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
    সম্পাদক ও প্রকাশক:
    মোঃ গোলাম মোস্তফা
    সুইট -১৭, ৫ম তলা, সাহেরা ট্রপিক্যাল সেন্টার,
    ২১৮ ডঃ কুদরত-ই-খোদা রোড,
    নিউ মার্কেট ঢাকা-১২০৯।
    মোবাইল - ০১৫৫৮৫৫৮৫৮৮,
    ই-মেইল : mail-crimenewsbd2013@gmail.com

    এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি
    অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও
    প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

  • গুরুত্বপূর্ণ লিঙ্ক

  • সামাজিক মাধ্যম