বিশ্বকাপের ট্রফি আসছে বাংলাদেশে                       টাঙ্গাইলে ট্রাক উল্টে একই পরিবারের নিহত ৩                       নির্বাচনের আগে বৈধ অস্ত্রের অবৈধ ব্যবহারে সতর্ক র‍্যাব: বেনজীর                       শাহজালালে ৭ কেজি স্বর্ণসহ মালয়েশীয় নাগরিক আটক                       রাজধানীর যে সব এলাকায় ১০ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না আজ       

ঝড়ের জন্য বন্ধ রাখতে হয়েছে শুটিং

কালো মেঘে ঢেকে গিয়েছিল শহর। ঝড়-বৃষ্টি দিয়েই শুরু হয়েছিল দিন। এ কারণে রাজধানীর উত্তরা, গাজীপুরের পুবাইলসহ বিভিন্ন জায়গায় শুটিং করতে গিয়ে সমস্যায় পড়েছেন পরিচালকেরা। বিভিন্ন জায়গায় পরিচালকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে এমন খবর। অনেক জায়গায় শুটিং বন্ধ রাখতে হয়েছে। অনেক জায়গায় থেমে থেমে হয়েছে শুটিং।গত শনিবার থেকে গাজীপুরের পুবাইলে একটি ধারাবাহিক নাটকের শুটিং করছিলেন নির্মাতা সাজ্জাদ হোসেন দোদুল। গতকাল সকাল থেকেই শুটিং করার কথা ছিল। কিন্তু সকালের বৃষ্টি বদলে দিল সবকিছু। পুবাইল থেকে গতকাল দুপুরে মুঠোফোনে তিনি বলেন, ‘সকাল থেকে বৃষ্টির সঙ্গে যুদ্ধ করে শুটিং করছি। দিনের খরচ ঠিকই হচ্ছে, কিন্তু কাজটা ঠিকমতো হচ্ছে না। বৃষ্টিতে শুটিং করতে গিয়ে ক্যামেরায় পানি ঢুকে সমস্যা দেখা দিয়েছে। রোদ না ওঠায় ঠিকমতো দৃশ্য ধারণ করা যাচ্ছে না।’পুবাইলের বিল বিলাই, হারুণের বাড়ি, বাদশা মিয়ার বাড়ি, শাহিনের বাড়ি হিসেবে পরিচিত শুটিংবাড়িতে গতকাল সারা দিনই থেমে থেমে চলেছে শুটিং। পুবাইলের শুটিংয়ের সমন্বয়কারী বলেন, বৃষ্টি কমলে ক্যামেরা চালু হচ্ছে আর বৃষ্টি শুরু হলে দৌড়ে বাড়িতে ঢুকে যাচ্ছেন সবাই।পুবাইলেই একটি একক নাটকে অভিনয় করছেন মীর সাব্বির। তিনি বলেন, পথে গাছপালা ভেঙে পড়ে ছিল। তাই শুটিং স্পটে আসতে সমস্যা হয়েছে। আসার পরও দুই দফা বৃষ্টির কারণে শুটিং বন্ধ ছিল।একই অবস্থা উত্তরাতেও। সময়ের গল্প ধারাবাহিকের শুটিং করছিলেন নির্মাতা তপু খান। তিনি বলেন, সকালে মোটরসাইকেলে করে মেকআপম্যান আসার সময় ঝড়ের কারণে দুর্ঘটনার কবলে পড়েন। তাঁকে ভর্তি হতে হয়েছে হাসপাতালে। পরে নতুন একজন মেকআপম্যান আসার পর কাজ শুরু হয়। তপু খান আরও বলেন, ‘আমার নাটকের বেশির ভাগ দৃশ্যের শুটিং ছিল বাইরে। কিন্তু বৃষ্টির কারণে চিত্রনাট্যে পরিবর্তন করে এখন ঘরের মধ্যে শুটিং করছি। সেখানেও সমস্যা দেখা দিয়েছে সংলাপ ধারণে। বজ্রপাত আর বৃষ্টির শব্দে শুটিং মাঝেমধ্যেই বন্ধ রাখতে হচ্ছে।’ এই নাটকে অভিনয় করছেন অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন। তিনি বলেন, ‘এমন দিনে শুটিং করা কঠিন। বাসায় থাকতে মন চায়। কিন্তু নির্মাতাকে যেহেতু কথা দিয়েছি, তাই চলে এসেছি। তবে আজ শুটিংবাড়িতে গরম নেই। এটা একটা আনন্দের ব্যাপার।’শুটিং হাউস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি খলিলুর রহমান বলেন, ‘সকালে একটু দেরিতে শুটিং শুরু হয়েছে। আর আজ (গতকাল) নির্মাতারা বাইরে শুটিং করা বন্ধ রেখেছিলেন। কিন্তু ঘন ঘন বিদ্যুৎ-বিভ্রাট হয়েছে। তবে আমার হাউসে জেনারেটরের ব্যবস্থা আছে। তাই খুব বেশি সমস্যা হচ্ছে না।’একই মতামত দেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলিম। তিনি বলেন, ‘আমার দুটি বাড়িতে চারটি ইউনিট শুটিং করছে। সকাল থেকে সমস্যা হলেও দুপুরের পর ইনডোরে ঠিকঠাক শুটিং করছে তারা।’


  • ক্রাইমনিউজবিডি.কম

    © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
    সম্পাদক ও প্রকাশক:
    মোঃ গোলাম মোস্তফা
    সুইট -১৭, ৫ম তলা, সাহেরা ট্রপিক্যাল সেন্টার,
    ২১৮ ডঃ কুদরত-ই-খোদা রোড,
    নিউ মার্কেট ঢাকা-১২০৯।
    মোবাইল - ০১৫৫৮৫৫৮৫৮৮,
    ই-মেইল : mail-crimenewsbd2013@gmail.com

    এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি
    অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও
    প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

  • গুরুত্বপূর্ণ লিঙ্ক

  • সামাজিক মাধ্যম